সাইকোলজি টেস্ট আপনার রাগের মাত্রা কতটুকু ?

সাইকোলজি টেস্ট আপনার রাগের মাত্রা কতটুকু ?

আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চলেছি একটি নতুন সাইকোলজি টেস্ট। এই টেস্ট টি থেকে বের হয়ে আসবে আপনার রাগের মাত্রা কতটা। এবং এই রাগ আপনার জীবনে কতটুকু প্রভাব বিস্তার করে।
এখানে আপনাকে কিছু প্রশ্ন করা হবে এবং প্রতিটি প্রশ্নে কিছু অপশন দেয়া থাকবে। অপশন গুলোর মধ্যে থেকে যে কোন একটি উত্তর সিলেক্ট করবেন এবং তার জন্য দেয়া নাম্বার গুলো একটি একটি করে যোগ করতে থাকবেন । সবশেষে আপনার পয়েন্ট কত হবে সেটার উপর ভিত্তি করে জেনে নিতে পারবেন আপনার রাগের মাত্রা কতটা।

চলুন টেস্ট টি শুরু করা যাক

১,ধরুন আপনি আপনার বাগানে একটি ফুল গাছ লাগিয়েছেন এবং আপনি গাছটির বেশ যত্ন করেন। হটাৎ একদিন দেখলেন আপনার প্রতিবেশীর একটি কুকুর আপনার গাছটি নষ্ট করে ফেলেছে, এবং কুকুরটা আপনার সামনে দাঁড়িয়ে আছে, এখন আপনি কি করবেন ?
ক, কুকুরটাকে বাড়ি দিয়ে মেরে ফেলবেন
খ, কুকুরটাকে ধরে আটকে রাখবেন এবং ইচ্ছে মত পিটিয়ে ছেড়ে দেবেন
গ, কিছুই করবেন না
ঘ, কুকুরের মালিককে বিষয়টি সম্পর্কে জানাবেন
১০,৭,০, ৪

২,আপনি রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছেন , হটাৎ কেউ একজন আপনার পিঠে থাপ্পড় মারল, আপনি তাকে চেনেন না । তৎক্ষণাৎ সে আপনার কাছে দূঃখ প্রকাশ করল এবং বলল পেছন থেকে আপনাকে তার বন্ধুর মত লাগছিল বলে সে ভুলে কাজটি করে ফেলেছে । এবার আপনি কি করবেন ?
ক, কিছু বলার আগেই বকা দিয়ে উঠবেন
খ, কিছু কড়া কথা শুনিয়ে দেবেন
গ, এটা স্বাভাবিক তাই কিছু বলবেন না
ঘ, আশ্চর্য জনক একটা ভাব করে তাকে লজ্জা দিবেন
১০, ৬,০,৭

৩,আপনি সুন্দর করে আপনার জামা কাপড় হ্যঙ্গোরে ঝুলিয়ে রেখেছেন ৷বাইরে থেকে এসে দেখলেন, কেও একজন তা এলােমেলো করে রেখেছে এবং তা আগের মত গোছানো নেই। কেমন রাগ হবে আপনার?
ক, একদমই না
খ, কিছুটা
গ, মোটামুটি
ঘ, অনেক
ঙ, খুব বেশি
০,২,৪,৬,৯

৪,কেও কোন ভুল করে তার দোষ আপনার উপর চাপিয়ে দিলে আপনার কেমন রাগ হবে?
ক, একদমই না
খ, কিছুটা
গ, মােটামুটি
ঘ, অনেক
ঙ, খুব বেশি
০,২,৪,৭,৯

৫, আপনি ব্যাংকে টাকা জমা দেয়ার জন্য দাঁড়িয়ে আছেন। এই সময় একটি ছোট বাচ্চা হাতে আইসক্রিম নিয়ে আপনার কাপড়ের হাত দিয়ে কাপড় টা নোংরা করে দিল। এঅবস্থায় আপনি কেমন বোধ করবেন
ক, একেবারেই রাগ করবেন না
খ, কিছুটা রাগান্বিত হবেন
গ, প্রচন্ড রেগে যাবেন
ঘ, বাচ্চাটাকে ভয় দেখিয়ে তাড়িয়ে দেবেন
০,৪,১০,৮

৬, মনে করুন আপনার বন্ধুরা আপনার পার্টনারকে নিয়ে মজা নিচ্ছে এবং আপনার কাছে তা অতিরিক্ত বলে মনে হচ্ছে এই সময় আপনি কি করবেন?
ক, সেখান থেকে রাগ করে চলে যাবেন
খ, কথা ঘুরানোর চেষ্টা করবেন
গ, তাদের সাথে ঝগড়া করবেন
ঘ, বন্ধুদের বলবেন আপনার পার্টনার এরকমই কিন্তু এতে আপনার কোন সমস্যা নেই।
ঙ, কিছুই করবেন না
১০,৫,৮,৪

৭, আপনি আপনার বন্ধুকে নিয়ে মুভি দেখতে গেছেন , আপনি মুভিটা বেশ উপভোগ করছেন কিন্তু আপনার পাশের ছিটে বসা লোকটা বারবার নারাচরা করছে ও ফোনে কথা বলছে, এঅবস্থায় আপনি কেমন বোধ করবেন
ক, একেবারেই রাগান্বিত হবেন না
খ, কিছুটা রাগান্বিত হবেন।
গ, প্রচন্ড রেগে যাবেন
০,৫,৮

৮, আপনি রেস্টুরেন্টে চার কাপ কফি একসাথে একটি ট্রে তে করে নেয়ার চেষ্টা করছেন I এমন সময় কেউ একজন হঠাৎ করে আপনার অতিক্রম করার সময় আপনার সাথে ধাক্কা খেল এবং কফি সব পড়ে গেল কেমন রাগ লাগবে আপনার?

ক, একদমই না
খ, কিছুটা
গ, মোটামুটি
ঘ, অনেক
ঙ, খুব বেশি
০,২,৪,৭,১০

৯, আপনি একটি যন্ত্র কিনে আনলেন এবং তা প্লাগ করলেন কিন্তু দেখলেন যন্ত্রটি কাজ করছে না এখন আপনার রাগ কেমন হবে ?
ক, একদমই না
খ, কিছুটা
গ, মোটামুটি
ঘ, অনেক
ঙ, খুব বেশি
০,২,৫,৭,১০

১০, রাস্তায় আপনার গাড়ি ট্রাফিক লাইটের সিগন্যাল এর কারণে থেমে আছে। তারপরেও পেছনের গাড়ী হর্ণ বাজাতেই আছে কেমন রাগ লাগবে সেই মুহূর্তে?
ক, এ কদমই না
খ, কিছুটা
গ, মোটামুটি
ঘ, অনেক
ঙ, খুব বেশি
০,২,৪,৬,৮

চচ

১১, আপনার সামনে কেউ না জেনে কোন বিষয় নিয়ে তর্ক করলে কেমন রাগ হবে ?
ক, প্রচন্ড রাগ হবে
খ, একেবারেই রাগ করবেন না
গ, কিছুটা রাগ লাগবে
ঘ, অনেক রাগ হবে

৮,০,৪,৬

১২, আপনি ও আরেক জন ব্যক্তি প্রয়োজনীয় কোন বিষয়ে কথা বলছেন এই সময়ে কেউ নাক গলাতে আসলে কি করবেন ?
ক, তাকে পাত্তা দেবেন না
খ, কথা বন্ধ করে তাকে লজ্জা দিবেন
গ, টিটকারি করে তাকে অপমান করবেন

৩,৬,৯

১৩, আপনি আপনার মোবাইলের শেষ ব্যালেন্স দিয়ে কাউকে কল করেছেন । কিন্তু কথা শেষ হবার আগেই কলটি নেটওয়ার্ক সমস্যার কারণে কেটে গেল কেমন রাগ হবে আপনার?
ক, প্রচন্ড রেগে যাবেন
খ, খুব রাগ লাগবে
গ, কিছুটা রাগান্বিত হবেন
ঘ, একেবারেই রাগ করবেন না

১০,৭,৪,০

১৪, আপনি তারাহুরো করে কোথাও যাচ্ছেন এমন সময় আপনার সার্টের বোতাম ছিঁড়ে গেল , কেমন রাগ হবে আপনার?
ক, প্রচন্ড রেগে যাবেন
খ, খুব রাগ লাগবে
গ, কিছুটা রাগান্বিত হবেন
ঘ, একেবারেই রাগ করবেন না

৯,৬,৪,০

১৫, কেউ আপনাকে নিয়ে মজা করলে আপনি কি করেন ?
ক, তার দূর্বলপয়েন্টে আঘাত করেন
খ, সরাসরি রিয়াক্ট করে প্রতিবাদ করেন
গ, কথা ঘুরানোর চেষ্টা করেন
ঘ, উল্টো নিজেকে নিয়ে নিজেই মজা করেন

৬,৮,৪,০

১৬, কেউ আপনার থেকে একটি বই পড়ার জন্য নিল পরে আর ফেরত দিলো না , পরবর্তীতে সে আবার বই চাইলে কি করবেন?
ক, বইটি দিয়ে দেবেন
খ, ১ম বইটি না দেবার জন্য লজ্জা দিবেন
গ, সরাসরি অপমান করবেন।

০,৫,১০,

১৭, আপনি কাউকে কিছু জিজ্ঞেস করলেন কিন্তু সে কোন উত্তর দিল না , কেমন রাগ হবে আপনার
ক, প্রচন্ড রাগ হবে
খ, একেবারেই রাগ করবেন না
গ, কিছুটা রাগ লাগবে
ঘ, অনেক রাগ হবে

১০,০,৩,৬

১৮, দোকানে শপিং করতে গেলেন এবং একজন সেলস ম্যন আপনাকে তার প্রডাক্টের ব্যপারে একটি রিভিউ বললো আপনি তাড়ার মধ্যে আছেন, এখন কেমন রিভিউ দেবেন।
ক, সময় নেই বলে চলে আসবেন
খ, বাজে রিভিউ দেবেন
গ, ভালো রিভিউ দেবেন

৪,৮, ০

১৯, আপনার গাড়ি বালি বা কাঁদায় আটকে গেলে কেমন রাগ হবে আপনার?

ক, প্রচন্ড রাগ হবে
খ, একেবারেই রাগ করবেন না
গ, কিছুটা রাগ লাগবে
ঘ, অনেক রাগ হবে

১০,০,৩,৬

২০, আপনার কোন বন্ধুর সাথে ঘুরতে যাবার প্ল্যান করছেন , ঠিক যাবার আগ মুহূর্তে সে প্ল‍্যানটি বাতিল করল , কেমন রাগ হবে আপনার
ক, প্রচন্ড রাগ হবে
খ, একেবারেই রাগ করবেন না
গ, কিছুটা রাগ লাগবে
ঘ, অনেক রাগ হবে

১০,০,৩,৬

০ থেকে ৭০

আপনি সহজে রেগে যান না এটা আপনার অনেক বড় গুণ। এই কারণে লোকজন আপনার কাছ থেকে ফায়দা নিতে চেষ্টা করে। অনেকে আবার আপনার উপর চাপ প্রয়োগ করে থাকে। আপনার রাগের মাত্রা কম হবার কারণে অনেকেই আপনার কাছে তাদের সমস্যা সমাধানের জন্য আসে। এটা আপনি বেশির ভাগ সময়ই উপভোগ করেন। আবার কখনো কখনো এটা আপনার বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তবে আপনি যদি রেগে যান তবে সেটা মারাত্বক পর্যায়ে চলে যায়। তবে যাই হোক না কেন সবচেয়ে বড় কথা হল আপনার রাগের উপর আপনার নিজের সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ রয়েছে। আপনি সহজেই আপনার এই ক্ষমতাকে নিজের প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারেন। আপনার আচরণ আসলে দুইটি বিপরীত ধর্মী পারসোনালিটির সাথে মেলে, হয় আপনি কেউ অপরাধ করলেও তার সাথে রাগ করার সাহস রাখেন না অথবা আপনার কাছে সম্পূর্ণ ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও তা ছোট খাট বিষয়ে ক্ষমতাকে ব্যবহার করতে চান না। তবে সবচেয়ে বড় কথা হলো আপনি একজন ঠান্ডা মাথার লোক । অস্বাভাবিককে নিজের নিয়ন্ত্রণে আনার ক্ষমতা আপনার মধ্যে আছে।

৭১ থেকে ১৪০

আপনি যদি এই ক্যাটাগরিতে পরে থাকেন তবে আপনার রাগের মাত্রা এভারেজ সাধারণ মানুষের মতোই । আপনার জন্য সত্য এটাই যে যার উপর আপনি রাগ করতে সক্ষম শুধু মাত্র তার উপরই আপনি রাগ দেখিয়ে থাকেন। আর যার উপর রাগান্বিত হলে আপনার ক্ষতি তার উপর ভুলেও রাগ করেন না। নিজের রাগকে কন্ট্রোল করার ক্ষমতা আপনার মধ্যে আছে। আবার কারো উপরে উপর রাগ করে আপনি সেটা খুব বেশি সময় মনেও রাখেন না। এটা আপনার একটি ভালো গুণ। কাছের মানুষ গুলোর জন্য আপনার মানসিকতা অনেকটা এরকম যে, আজ কেউ ভালো কিছু করলে আপনি তাকে বাহবা দেন ঠিকই। কিন্তু সেই লোকটিই কাল যদি খারাপ কিছু করে তবে তাকে গালমন্দ করতেও আপনি দৃধা বোধ করেন না।

১৪১থেকে ২০০

আপনি যদি এই ক্যাটাগরিতে পরে থাকেন তবে আপনার রাগের মাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক বেশি । আপনি অল্পতেই রেগে যান। লোকজন আপনার কাছ থেকে একটু দূরে থাকতেই পছন্দ করে। কখনো কখনো আপনি নিজেই সেটা চান। তবে আপনার কাছের কিছু মানুষ আপনাকে খুব ভালোবাসে। আপনি রাগান্বিত হয়ে গেলে আপনি কাকে কি বলছেন তার উপর নিজের নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারেন না। এই সব আচরণ অনেক সময় আপনার ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আপনি রাগের মাথায় কখনো কখনো ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে বসেন।

সবশেষে বাস্তবতা হলো এটাই যে মানুষের রাগ অন্য আর সব আবেগের মতোই একটি আবেগের বহিঃপ্রকাশ । যেটা সম্পুর্ণ নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখাটাই গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া এটা যদি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় তাহলে এটা শুধু ক্ষতিই বয়ে আনবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *